Limited-Time Discount | Enroll today and learn risk-free with our 30-day money-back guarantee.

Login

SIGN UP for FREE

ORDER NOW

Login
thumbnail

যেসব কারণে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার সফল হয় না

ক্রিয়েটিভিটি! যেকোনো কাজের ক্ষেত্রে এই জিনিসটি আসলে অনেক ইম্পরট্যান্ট। ফ্রিল্যান্সিং কাজের ক্ষেত্রে ক্রিয়েটিভিটি হলো প্রধান একটি বিষয়! আপনি কোন কাজকে আরও যতটা সময় নিয়ে ভিন্নভাবে করার শেষ করার চেষ্টা করবেন, আপনার সফলতার পরিমান তুলনামূলকভাবে ভাল হবে। তবে নানা কারণে আপনার এই ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হতে পারে। তেমনই ৫টি কারণ নিয়ে আমার আজকের এই প্রতিবেদন।
ঘরে বসে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়ুন

ই-লার্ন বাংলাদেশ এর ভিডিও টিউটোরিয়াল কোর্স করুন

বিভিন্ন বিষয় শিখতে এখন আর ট্রেনিং সেন্টারে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। ভিডিও টিউটোরিয়াল নিয়ে ঘরে বসেই শিখুন বিভিন্ন ধরনের প্রফেশনাল মানের কাজ।

বিস্তারিত পড়ুন
আসুন তাহলে কথা না বাড়িয়ে জেনে নিই কি কি কারণে আপনার আমার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয় বা হারিয়ে যায়।
image
প্রথমত কাজে মনযোগ না থাকাঃ
কোনো কাজকে ভালোভাবে সম্পন্ন করতে হলে অবশ্যই সে কাজের প্রতি মনেযাগী থাকা অনেক জরুরী। আসলে আমি যেটা বলবো, মনযোগ না থাকলে ক্রিয়েটিভিটি তৈরি হয়না। সেইটা পৃথিবীর যেকোনো কাজের ক্ষেত্রে। কাজের সময় আপনাকে যদি ফোনে কথা বলতে হয়, কিংবা পাশে অন্য কেই কথা বলতে থাকে, কাজের মাঝে মাঝে টেবিল ছেড়ে উঠতে হয় তাহলে অবশ্যই ঐ কাজটি ভালোভাবে সম্পন্ন করা কঠিন হয়ে পড়ে। তাই এধরনের বিষয়গুলি এড়িয়ে কাজের দিকে মনোনিবেশ করা উচিত। তার মানে এই নয় যে আপনি অন্য কোনোকিছু করতে পারবেন না। কাজ করার সময় সিরিয়াস হলে সবকিছু ঠিকভাবে করা সম্ভব।
দ্বিতীয়ত কারণ হচ্ছেঃ ঠিকমতো না ঘুমানো
কাজের ক্ষেত্রে অবশ্যই ডেডলাইন মেনে চলতে হয়। আর এই ডেডলাইন মেনে চলতে অনেকেই গভীর রাত জেগে কাজ করেন। আর কম ঘুমানোর ফলে কাজের ক্ষেত্রে মনযোগ কম থাকে। ফলে ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয়!

গ্রাফিক ডিজাইন শিখে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে ভিডিও টি দেখুন

আরও ভিডিও
বিজ্ঞাপন
তৃতীয়ত কারণ হচ্ছে চিন্তা করা, অর্থাৎ কাজটি ভাল হবে কি না সেইটা নিয়ে ভাবাঃ
অনেকের মাঝেই একটি ভয় কাজ করে সেটি হলো কাজটি ক্লায়েন্টের পছন্দ হবে কিনা? এরফলে তিনি কাজ করার সময় ভালো মনযোগ দিতে পারেন না। কিন্তু এই চিন্তা না করে নিজের পছন্দসহ ভাবে কাজ করলে সফল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। মনে রাখতে হবে, ক্লায়েন্ট আপনাকে পে করছে তার মানেই কাজ তার পছন্দ হয়েছে বা হবে। তাই এই ধরণের চিন্তা ছাড়াই কাজ করুন।
চতুর্থতম কারণ হলোঃ আর্থিক চিন্তা
অনেকেই বেশি আয় করার চিন্তার কারণে তাড়াহুড়ো ভাবে কাজ করেন। এটি সর্বক্ষেত্রে তার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট করে। এসব চিন্তা না করে ভালোভাবে কাজ করলে আরো বেশি আয় করা সম্ভব। মনে রাখতে হবে আপনার কাজটি যত সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলবেন ততোই আপনার কাজের চাহিদা বাড়বে, সেই হিসেবে আয়ও বাড়বে।
সর্বশেষ কারণ হলোঃ অত্যাধিক কাজের চাপ
ক্লায়েন্টরা অতি তাড়াতাড়ি কাজটি করিয়ে নিতে চাইবে এটাই স্বাভাবিক। তবে আপনাকে অবশ্যই ডেডলাইনের কথা মনে রাখতে হবে। যেকোনো কারণে আপনার কাজটি শেষ করতে বিলম্ব হতে পারে। তাই যে কাজটি আপনি ৫ দিনে করতে পারবেন, ক্লায়েন্টের কাছ থেকে সেই কাজটি করার জন্য কমপক্ষে ৭ দিন সময় নিবেন। ফলে আপনার চাপ থাকবে না। কিন্তু এটা যদি না করেন তাহলে তাড়াতাড়ি কাজটি শেষ করতে গিয়ে ভালভাবে করতে পারবেন না, ফলে আপনার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হতে পারে।
বুঝতে পারলেন কেন আপনার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয়? আপনি যদি উপরিক্ত কারণসমূহ ভালোভাবে নিজের মাথায় রেখে কাজ করেন তাহলে আপনি অবশ্যই ভালো কিছু করতে পারবেন।
আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি অনেক ভালো লেগেছে। সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমার আর্টিকেলটি পড়ার জন্য, আসসালামু আলাইকুম।

|| Design by Mamunur Rashid ||

Payment
গ্রাফিক ডিজাইন ওয়েব ডিজাইন আউটসোর্সিং এম এস অফিস কম্পিউটার টিপস ফটো এডিটিং
thumbnail

যেসব কারণে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার সফল হয় না

ক্রিয়েটিভিটি! যেকোনো কাজের ক্ষেত্রে এই জিনিসটি আসলে অনেক ইম্পরট্যান্ট। ফ্রিল্যান্সিং কাজের ক্ষেত্রে ক্রিয়েটিভিটি হলো প্রধান একটি বিষয়! আপনি কোন কাজকে আরও যতটা সময় নিয়ে ভিন্নভাবে করার শেষ করার চেষ্টা করবেন, আপনার সফলতার পরিমান তুলনামূলকভাবে ভাল হবে। তবে নানা কারণে আপনার এই ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হতে পারে। তেমনই ৫টি কারণ নিয়ে আমার আজকের এই প্রতিবেদন।
ঘরে বসে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়ুন

ই-লার্ন বাংলাদেশ এর ভিডিও টিউটোরিয়াল কোর্স করুন

বিভিন্ন বিষয় শিখতে এখন আর ট্রেনিং সেন্টারে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। ভিডিও টিউটোরিয়াল নিয়ে ঘরে বসেই শিখুন বিভিন্ন ধরনের প্রফেশনাল মানের কাজ।

বিস্তারিত পড়ুন
আসুন তাহলে কথা না বাড়িয়ে জেনে নিই কি কি কারণে আপনার আমার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয় বা হারিয়ে যায়।
image
প্রথমত কাজে মনযোগ না থাকাঃ
কোনো কাজকে ভালোভাবে সম্পন্ন করতে হলে অবশ্যই সে কাজের প্রতি মনেযাগী থাকা অনেক জরুরী। আসলে আমি যেটা বলবো, মনযোগ না থাকলে ক্রিয়েটিভিটি তৈরি হয়না। সেইটা পৃথিবীর যেকোনো কাজের ক্ষেত্রে। কাজের সময় আপনাকে যদি ফোনে কথা বলতে হয়, কিংবা পাশে অন্য কেই কথা বলতে থাকে, কাজের মাঝে মাঝে টেবিল ছেড়ে উঠতে হয় তাহলে অবশ্যই ঐ কাজটি ভালোভাবে সম্পন্ন করা কঠিন হয়ে পড়ে। তাই এধরনের বিষয়গুলি এড়িয়ে কাজের দিকে মনোনিবেশ করা উচিত। তার মানে এই নয় যে আপনি অন্য কোনোকিছু করতে পারবেন না। কাজ করার সময় সিরিয়াস হলে সবকিছু ঠিকভাবে করা সম্ভব।
দ্বিতীয়ত কারণ হচ্ছেঃ ঠিকমতো না ঘুমানো
কাজের ক্ষেত্রে অবশ্যই ডেডলাইন মেনে চলতে হয়। আর এই ডেডলাইন মেনে চলতে অনেকেই গভীর রাত জেগে কাজ করেন। আর কম ঘুমানোর ফলে কাজের ক্ষেত্রে মনযোগ কম থাকে। ফলে ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয়!

গ্রাফিক ডিজাইন শিখে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে ভিডিও টি দেখুন

আরও ভিডিও
বিজ্ঞাপন
তৃতীয়ত কারণ হচ্ছে চিন্তা করা, অর্থাৎ কাজটি ভাল হবে কি না সেইটা নিয়ে ভাবাঃ
অনেকের মাঝেই একটি ভয় কাজ করে সেটি হলো কাজটি ক্লায়েন্টের পছন্দ হবে কিনা? এরফলে তিনি কাজ করার সময় ভালো মনযোগ দিতে পারেন না। কিন্তু এই চিন্তা না করে নিজের পছন্দসহ ভাবে কাজ করলে সফল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। মনে রাখতে হবে, ক্লায়েন্ট আপনাকে পে করছে তার মানেই কাজ তার পছন্দ হয়েছে বা হবে। তাই এই ধরণের চিন্তা ছাড়াই কাজ করুন।
চতুর্থতম কারণ হলোঃ আর্থিক চিন্তা
অনেকেই বেশি আয় করার চিন্তার কারণে তাড়াহুড়ো ভাবে কাজ করেন। এটি সর্বক্ষেত্রে তার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট করে। এসব চিন্তা না করে ভালোভাবে কাজ করলে আরো বেশি আয় করা সম্ভব। মনে রাখতে হবে আপনার কাজটি যত সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলবেন ততোই আপনার কাজের চাহিদা বাড়বে, সেই হিসেবে আয়ও বাড়বে।
সর্বশেষ কারণ হলোঃ অত্যাধিক কাজের চাপ
ক্লায়েন্টরা অতি তাড়াতাড়ি কাজটি করিয়ে নিতে চাইবে এটাই স্বাভাবিক। তবে আপনাকে অবশ্যই ডেডলাইনের কথা মনে রাখতে হবে। যেকোনো কারণে আপনার কাজটি শেষ করতে বিলম্ব হতে পারে। তাই যে কাজটি আপনি ৫ দিনে করতে পারবেন, ক্লায়েন্টের কাছ থেকে সেই কাজটি করার জন্য কমপক্ষে ৭ দিন সময় নিবেন। ফলে আপনার চাপ থাকবে না। কিন্তু এটা যদি না করেন তাহলে তাড়াতাড়ি কাজটি শেষ করতে গিয়ে ভালভাবে করতে পারবেন না, ফলে আপনার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হতে পারে।
বুঝতে পারলেন কেন আপনার ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয়? আপনি যদি উপরিক্ত কারণসমূহ ভালোভাবে নিজের মাথায় রেখে কাজ করেন তাহলে আপনি অবশ্যই ভালো কিছু করতে পারবেন।
আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি অনেক ভালো লেগেছে। সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমার আর্টিকেলটি পড়ার জন্য, আসসালামু আলাইকুম।

আপনার মতামত লিখুনঃ